রা’তে ৯ বা’র, সকা’লে স,হ’বা’স কর’তে না দে,ওয়া’য় যু,ব’কে’র কা’ণ্ড

0
15

সারা রাতভর অ’বৈধ মেলামেশার পর প’র’কীয়া প্রে’মিক দুই স্ত’ন ও গ’লা কে’টে মে’রে ফেলার উদ্দেশ্যে রাস্তার পাশে ফে’লে দিয়ে গেছে শিল্পী আক্তার (৩২) নামে

এক সৌদী প্রবাসীর স্ত্রী’কে। নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজে’লার ফতেহপুর ইউনিয়নের দক্ষিণপাড়া এলাকা থেকে পু’লিশ র’ক্তা’ক্ত অবস্থায় যুবতীকে উ’’দ্ধার করেছে ।

আরও পড়ুন : ক্ষমতায় থাকাকালীন কিছু মুসলিম দেশের নাগরিকদের যুক্তরাষ্ট্র ভ্রমণে নিষে’ধাজ্ঞা আরোপ করেছিলেন ট্রাম্প। আর ক্ষমতায় এলে হোয়াইট হাউজে তার প্রথম দিনই হবে

যুক্তরাষ্ট্রে মুসলিম নিষে’ধাজ্ঞার শেষ দিন, এমনটিই ঘোষণা দিয়েছিলেন জো বাইডেন। তাই বাইডেন নির্বাচিত হওয়ায় এ নিয়ে নতুন করে আলোচনা শুরু হয়েছে। ২০১৭ সালে দায়িত্ব গ্রহণের কিছুদিন পরই প্রেসিডেন্টের নির্বাহী আদেশে মুসলিম নিষে’ধাজ্ঞা জারি করেন ট্রাম্প। আল জাজিরা-র খবরে বলা হয়েছে, এখন বাইডেন প্রশাসন চাইলে

খুবই সহজেই নির্বাহী আদেশে ওই সি’দ্ধান্ত উল্টো দিতে পারে। তবে কনজারভেটিভ পার্টি এ নিয়ে আ’দালতের শরণাপন্ন হলে নিষে’ধাজ্ঞা বাতিলের প্রক্রিয়ায় কিছুটা বিলম্ব ‘হতে পারে।

নির্বাচনের আগেই বিদ্বেষমূলক অ’পরাধের বিরু’দ্ধে লড়াইয়ের কথা বলেন বাইডেন। মুসলিম সম্প্রদায়ের উদ্দেশে তিনি বলেন, প্রেসিডেন্ট হিসেবে আমি আপনাদের অবদানকে সম্মান জানাতে এবং সমাজ থেকে ঘৃণার বি’ষয় উপড়ে ফেলতে আমি আপনাদের স’ঙ্গে কাজ করবো।

আমা’র প্রশাসন প্রতিটি স্তরেই মুসলিম আমেরিকানদের অবদান দেখতে চাইবে। হোয়াইট হাউসে প্রথম দিনই আমি ট্রাম্পের অসাংবিধানিক মুসলিম নিষে’ধাজ্ঞার পরিসমা’প্তি ঘটাবো। তিনি বলেন, এই নির্বাচনের মধ্য দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের মানুষ কথা বলেছে। তারা আমা’দের সুস্পষ্ট বিজয় এনে দিয়েছেন। এটা জনগণের বিজয়। নবনির্বাচিত মা’র্কিন প্রেসিডেন্ট আরো বলেন, ‌এই জাতির ইতিহাসে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে আমর’া সবচেয়ে বেশি ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছি–সাত কোটি ৪০ লাখ ভোট।

আমা’র ওপর আপনাদের এই আস্থা ও বিশ্বা’সের জন্য আমি কৃতজ্ঞ। কোটি কোটি আমেরিকান আমা’র দৃষ্টিভ’ঙ্গির পক্ষে ভোট দিয়েছেন। এটি আমা’র জীবদ্দশায় এক অনন্য সম্মান। যে দৃষ্টিভ’ঙ্গির প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের মানুষ রায় দিয়েছে তাকে বাস্তবে পরিণত করাই এখন আমা’দের কাজ।