অবশেষে ফাইনাল সিদ্ধান্ত, সৌদিতে রবিবার থেকে সব ওপেন- আর মাস্ক পরতে হবে না

0
95

অবশেষে ফাইনাল সিদ্ধান্ত স্বরাষ্ট্র মন্ত্রনালয়ের”মাস্ক পরতে হবে না যাদের এবং অন্যান্য নিয়ম। বিস্তারিত জেনে নিন নিচের ভিডিওতে

আগামী ১৭ অক্টোবর থেকে সৌদি আরবে মাস্ক ছাড়া চলাফেরা করার অনুমতি প্রদান করা হয়েছে। তবে এক্ষেত্রে মানতে হবে বেশ কিছু শর্তাবলী। আগামী ১৭ অক্টোবর থেকে সৌদি আরবে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক থাকছে না। এখন থেকে কোভিড-১৯ ভাইরাসের দুইডোজ টিকা গ্রহণকারীদের খোলা জায়গায় মাস্ক ব্যবহারের নিষেধাজ্ঞা উঠে যাচ্ছে। তবে মাস্ক না পরার ক্ষেত্রে বেশ কিছু শর্ত মেনে চলতে হবে।

শর্তগুলো হচ্ছে ১) খোলামেলা জায়গায় মাস্ক ব্যবহার না করলেও চলবে। এক্ষেত্রে মাস্ক পরিধান বাধ্যতামূলক নয়। ২) তবে যারা এখনো কোভিড-১৯ ভাইরাসের দুই ডোজ টিকা গ্রহণ করেনি তাদের এখনো আগের মতোই সব জায়গায় মাস্ক ব্যবহার করতে হবে।

৩) ইনডোর পাবলিক প্লেসে অর্থাৎ আবদ্ধ জায়গায় যেখানে জনসমাগম হয় সেসব জায়গায় এখনো পূর্বের মতোই মাস্ক ব্যবহার করা বাধ্যতামূলক থাকছে। ৪) এখন থেকে মসজিদুল হারাম ও মসজিদে নববীবে করোনা টিকা গ্রহণকারীরা সম্পূর্ণভাবে প্রবেশ করতে পারবেন। কোন অনুমতির প্রয়োজন লাগবে না। তবে এক্ষেত্রে সেখানে মাস্ক ব্যবহার করতে হবে।

৫) পাবলিক প্লেস যেমন সিনেমা হল, রেস্টুরেন্ট, গণপরিবহন এসব জায়গায় সামাজিক দূরত্ব মানার বাধ্যবাধকতা থাকছে না। ৬) বিয়ে বা অন্য কোন সামাজিক অনুষ্ঠানে ইচ্ছেমত অংশগ্রহণ করা যাবে। এক্ষেত্রে কোন নির্দিষ্ট সংখ্যক কিংবা সীমাবদ্ধতা থাকবে না। তবে এক্ষেত্রেও মাস্ক ব্যবহার বাধ্যতামূলক।

উল্লেখ্য, মহামারী শুরুর দীর্ঘ ১৪ মাস পর সৌদি আরবে মাস্ক পরার নিষেধাজ্ঞা উঠে যাচ্ছে। করোনা ভাইরাস মহামারীর জন্য এতদিন জনসম্মুখে মাস্ক পড়া বাধ্যতামূলক ছিল। আরোপড়ুন সৌদি আরবে ১৫ লক্ষ ইয়াবা ট্যাবলেটের চোরাচালান জব্দ সৌদি আরবে আজ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ৪৮, আক্রান্ত থেকে সুস্থ ৪২ জন ১৭ অক্টোবর থেকে সৌদিতে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক থাকছে না!

কিন্তু আগামী ১৭ অক্টোবর থেকে সৌদি আরবে মাস্ক পরা আর বাধ্যতামূলক থাকছে না। কোভিড-১৯ ভাইরাসের দুই ডোজ টিকা যাদের রয়েছে, তারা নির্দিষ্ট কিছু স্থান ছাড়া সবখানে মাস্ক ছাড়া চলাফেরা করতে পারবেন। দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা সৌদি প্রেস এজেন্সি এসব তথ্য জানিয়েছে।

অবশেষে ফাইনাল সিদ্ধান্ত স্বরাষ্ট্র মন্ত্রনালয়ের”মাস্ক পরতে হবে না যাদের এবং অন্যান্য নিয়ম। বিস্তারিত জেনে নিন নিচের ভিডিওতে

আগামী ১৭ অক্টোবর থেকে সৌদি আরবে মাস্ক ছাড়া চলাফেরা করার অনুমতি প্রদান করা হয়েছে। তবে এক্ষেত্রে মানতে হবে বেশ কিছু শর্তাবলী। আগামী ১৭ অক্টোবর থেকে সৌদি আরবে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক থাকছে না। এখন থেকে কোভিড-১৯ ভাইরাসের দুইডোজ টিকা গ্রহণকারীদের খোলা জায়গায় মাস্ক ব্যবহারের নিষেধাজ্ঞা উঠে যাচ্ছে। তবে মাস্ক না পরার ক্ষেত্রে বেশ কিছু শর্ত মেনে চলতে হবে।

শর্তগুলো হচ্ছে ১) খোলামেলা জায়গায় মাস্ক ব্যবহার না করলেও চলবে। এক্ষেত্রে মাস্ক পরিধান বাধ্যতামূলক নয়। ২) তবে যারা এখনো কোভিড-১৯ ভাইরাসের দুই ডোজ টিকা গ্রহণ করেনি তাদের এখনো আগের মতোই সব জায়গায় মাস্ক ব্যবহার করতে হবে।

৩) ইনডোর পাবলিক প্লেসে অর্থাৎ আবদ্ধ জায়গায় যেখানে জনসমাগম হয় সেসব জায়গায় এখনো পূর্বের মতোই মাস্ক ব্যবহার করা বাধ্যতামূলক থাকছে। ৪) এখন থেকে মসজিদুল হারাম ও মসজিদে নববীবে করোনা টিকা গ্রহণকারীরা সম্পূর্ণভাবে প্রবেশ করতে পারবেন। কোন অনুমতির প্রয়োজন লাগবে না। তবে এক্ষেত্রে সেখানে মাস্ক ব্যবহার করতে হবে।

৫) পাবলিক প্লেস যেমন সিনেমা হল, রেস্টুরেন্ট, গণপরিবহন এসব জায়গায় সামাজিক দূরত্ব মানার বাধ্যবাধকতা থাকছে না। ৬) বিয়ে বা অন্য কোন সামাজিক অনুষ্ঠানে ইচ্ছেমত অংশগ্রহণ করা যাবে। এক্ষেত্রে কোন নির্দিষ্ট সংখ্যক কিংবা সীমাবদ্ধতা থাকবে না। তবে এক্ষেত্রেও মাস্ক ব্যবহার বাধ্যতামূলক।

উল্লেখ্য, মহামারী শুরুর দীর্ঘ ১৪ মাস পর সৌদি আরবে মাস্ক পরার নিষেধাজ্ঞা উঠে যাচ্ছে। করোনা ভাইরাস মহামারীর জন্য এতদিন জনসম্মুখে মাস্ক পড়া বাধ্যতামূলক ছিল। আরোপড়ুন সৌদি আরবে ১৫ লক্ষ ইয়াবা ট্যাবলেটের চোরাচালান জব্দ সৌদি আরবে আজ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ৪৮, আক্রান্ত থেকে সুস্থ ৪২ জন ১৭ অক্টোবর থেকে সৌদিতে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক থাকছে না!

কিন্তু আগামী ১৭ অক্টোবর থেকে সৌদি আরবে মাস্ক পরা আর বাধ্যতামূলক থাকছে না। কোভিড-১৯ ভাইরাসের দুই ডোজ টিকা যাদের রয়েছে, তারা নির্দিষ্ট কিছু স্থান ছাড়া সবখানে মাস্ক ছাড়া চলাফেরা করতে পারবেন। দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা সৌদি প্রেস এজেন্সি এসব তথ্য জানিয়েছে।