August 8, 2022

বিয়ের দাবিতে প্রে’মিকের বাড়িতে প্রে’মিকার অ’নশন, অতঃপর

ফরিদপুরের সালথায় বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে অবস্থান নিয়েছিলেন এক প্রেমিকা। শুক্রবার (১৭ জুন) সকাল থেকে প্রেমিকের বাড়িতে অবস্থান করছেন তিনি। জানা যায়, উপজেলার যদুনন্দী ইউনিয়নের জগন্নাথদি গ্রামের শুনীল মিত্রের ছেলে সুমন মিত্রের (২৮) সঙ্গে ওই নারীর দীর্ঘ ১ বছরের প্রেমের সম্পর্ক ছিলো । এর মধ্যে সুমন মিত্রের বিয়ের জন্য মেয়ে দেখছে। এমন খবর পেয়ে শুক্রবার সকাল থেকে প্রেমিক সুমন মিত্রের বাড়িতে গিয়ে ওই নারী বিয়ের দাবিতে অবস্থান শুরু করেছে।

সুমন মিত্রের বাড়িতে অবস্থানরত ওই নারী জানান, সুমন মিত্রের সাথে তার প্রায় বছর খানেক ধরে প্রেমের সম্পর্ক চলছে। প্রেমের ওই সম্পর্কে বিয়ের আশ্বাসে সুমন মিত্রের সঙ্গে একাধিকবার শারীরিক সম্পর্ক হয়েছে। ওই নারী আরো জানান, সুমনের পরিবার তাদের সম্পর্কের বিষয়টি আগে থেকেই জানতো। আমার আগে অন্যত্র বিয়ে হয়েছিলো যেখান থেকে বিয়ের প্রলোভনে ১৫ দিনের মাথায় আমার প্রাক্তন স্বামীকে তালাক দেওয়ায়।

তালাক দেওয়ার পর থেকে আমাকে বিয়ে করতে অস্বীকার করছে। কিন্তু সুমন মিত্রের পরিবার আমার নিকট ৫০ লক্ষ টাকা দাবী করছে। ৫০ লক্ষ টাকা দিলে তারা আমাকে মেনে নিবে। তবে এ বিষয়ে সুমন মিত্রের কোন বক্তব্য পাওয়া যায়নি। এসময় সুমন মিত্রের মা ৫০ লক্ষ টাকা চাওয়ার বিষয়টি অস্বীকার করে বলেন, আমরা এই মেয়েকে মেনে নিবো না।

এদিকে সালথা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ সাদিক বিডি২৪লাইভকে বলেন, এ বিষয়ে খবর পেয়ে আমি ঘটনাস্থলে গিয়েছিলাম। মেয়েটি বিয়ের দাবিতে অনশনরত ছিলো, পরে স্থানীয় মাতুব্বর ও আমার উপস্থিতিতে দু’পক্ষের মধ্যে একটা সমঝোতা হয়েছে। বিয়ের প্রক্রিয়া চলছে। আজকেই বিয়ে হয়ে যাবে।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.